শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে রুয়েট উপাচার্য অবরুদ্ধ

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রুয়েট

ক্রেডিট প্রথা বাতিলের দাবিতে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) প্রশাসন ভবনে অবস্থান নিয়েছে শিক্ষার্থীরা। ভবনের ভেতরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন উপাচার্য।

শনিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত অবরুদ্ধ হয়ে আছেন উপাচার্য। দাবি মানা না পর্যন্ত অবস্থান অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

রুয়েট সূত্র জানায়, ন্যূনতম ৩৩ ক্রেডিট প্রথা বাতিলের দাবি জানিয়ে পঞ্চম দিনের মতো আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা ন্যায্য দাবি নিয়ে আন্দোলন করছি। আমাদের দাবি না মানা পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাবো।

তবে তাদের দাবিকে অযৌক্তিক বলছে রুয়েট প্রশাসন। দাবি না মানার ব্যাপারে রুয়েট প্রশাসনও অনড় বলে জানা গেছে।

এর আগে আন্দোলন থামাতে ৩১ জানুয়ারি রুয়েট প্রশাসন ১৪ ও ১৫ সিরিজের শিক্ষার্থীদের সব একাডেমিক কার্যক্রম স্থগিতের ঘোষণা দেয়। পরের দিন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয় কর্তৃপক্ষ।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ৩৩ ক্রেডিট পদ্ধতির কারণে শিক্ষার্থীরা নানা সমস্যার সম্মুখিন হবে। বিশেষ করে, রুয়েটে ক্লাস-ল্যাবের সংকট থাকার কারণে যারা ক্রেডিট অর্জন করতে পারবে না তাদের অন্য ব্যাচের সঙ্গে ক্লাস বা ল্যাবে থাকতে হবে।

এছাড়া কোনও শিক্ষার্থী অসুস্থ বা অন্য কোনও সমস্যার কারণে পরীক্ষা দিতে না পারলে তার এক বছরের বেশি সময় ক্ষতি হয়।

এ বিষয়ে রুয়েট উপাচার্য অধ্যাপক রফিকুল আলম বেগ বলেন, আমরা তাদের বারবার আলোচনার জন্য আহ্বান জানিয়েছি। কিন্তু তারা আমাদের কোনও কথা শোনেনি। তারা আমাকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে।

খবরঃ বাংলানিউজ