শেরপুর দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত ১৫

বগুড়া রাজশাহী বিভাগ

ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের শেরপুর উপজেলার শেরুয়া বটতলা এলাকায় মৎস্য খামারের সামনে দুটি যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে কমপেক্ষ ১৫জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে ৫জনকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শজিমেক) পাঠানো হয়েছে।

এদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক তায়েব ইবনে জাহিদ বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেন।

এদিকে দুর্ঘটনার পরপরই মহাসড়কের দু’পাশে অসংখ্য যানবাহন আটকা পড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। প্রায় আধা ঘণ্টা পর যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বগুড়া থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া মামুন এক্সপ্রেস (ঢাকা মেট্রো ব-১৪-২৯৬৮) নামের একটি যাত্রীবাহী বাস উক্ত স্থানে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি যাত্রীবাহী বাসের (ঢাকা মেট্রো ব-১১-৪২৬০) মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে কমপক্ষে ১৫জন যাত্রী আহত হন।

এসময় মামুন এক্সপ্রেস নামের যাত্রীবাহী বাসটি মহাসড়কের পাশে একটি ‘স’ মিলে ডুকে পড়ে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স’র সদস্যরা আহতের উদ্ধার করে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়।

এদের মধ্যে মামুন এক্সপ্রেসের চালকসহ ৫জনকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (শজিমেক) পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিজান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।