‘সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অঙ্গীকারাবদ্ধ’

তথ্য প্রযুক্তি রাজশাহী

সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অঙ্গীকারাবদ্ধ বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

রোববার (৩০ অক্টোবর) বিকেলে রাজশাহী সার্কিট হাউজে বিভাগের ‘শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব’ স্থাপিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অঙ্গীকারাবদ্ধ। প্রযুক্তিবান্ধব এ সরকার তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়ন ও ভবিষ্যত প্রজন্মকে প্রযুক্তিতে দক্ষ করে গড়ে তুলতে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এখন শিশুরা মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুমে ক্লাস করছে। ভবিষ্যত প্রজন্মকে দক্ষ ও উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে রাজশাহীর ৪২টিসহ দেশের দুই হাজার ০১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ‘শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব’ স্থাপন করা হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ২০১৮ সালের মধ্যে আরও ১০ হাজার ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হবে। ২০২১ সালের মধ্যে আইটি খাতে পাঁচ বিলিয়ন ডলার আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নিশ্চিত করতে সরকার যা যা করা দরকার করবে। রাজশাহীর ৩০ একর জমিতে হাইটেক পার্ক নির্মাণ দক্ষ ও উপযুক্ত প্রযুক্তি নির্ভর তরুণ প্রজন্মের কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

মতবিনিময় সভায় সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুস, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি আবদুস সোবহান, রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর হবিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

পরে প্রতিমন্ত্রী বরেন্দ্র ভবনে বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বোর্ড সদস্যদের ত্রৈমাসিক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন।

এর আগে সকালে প্রতিমন্ত্রী রাজশাহীতে সিলিকন সিটির জন্য নির্ধারিত স্থান পরিদর্শন করেন।

সেখানে তিনি বলেন, রাজশাহীর জিয়ানগরে আগামী বছরের শুরুতেই বরেন্দ্র সিলিকন সিটির নির্মাণ কাজ শুরু হবে। সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ৪৬ কোটি টাকাও বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এখন দরপত্র আহ্বান করে কাজ শুরু করা হবে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, সিলিকন সিটির প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য চারতলা ভবন ও প্রশিক্ষণের জন্য দশতলা টাওয়ার নির্মাণ করা হবে। বরেন্দ্র সিলিকন সিটির কাজ শুরু হলে এখান থেকে ১৪ হাজার লোকের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে।

এ সময় রাজশাহীর জেলা প্রশাসক কাজী আশরাফ উদ্দীন প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

খবরঃ বাংলানিউজ