সরিয়ে নেওয়া হলো ‘আল্লাহ মেহেরবান’

বিনোদন

উকিল নোটিশ পাওয়ার দু’দিনের মধ্যে ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হলো বিতর্ক সৃষ্টিকারী আইটেম নাম্বার ‘আল্লাহ মেহেরবান’-এর ভিডিও। ২৯ মে রাত দুটোর পর থেকে জাজ মাল্টিমিডিয়ার ইউটিউব চ্যানেলে গানটি আর দেখা যাচ্ছে না।

ঈদে মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘বস টু’ ছবির ‘আল্লাহ মেহেরবান’ গানটি ইউটিউবে আসার পর থেকে বিতর্ক তৈরি করে। এ কারণে দুটি আইনি নোটিশ দেওয়া হয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজের বিরুদ্ধে। এরই ফলশ্রুতিতে জাজ ইউটিউব থেকে গানটি সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছে।

২৬ মে জাজ মাল্টিমিডিয়ার ইউটিউব চ্যানেলে উন্মুক্ত করা হয় নুসরাত ফারিয়া ও কলকাতার জিৎ অভিনীত ‘আল্লাহ মেহেরবান’ গানটি। গানের কথার সঙ্গে ফারিয়ার অশালীন পোশাক ও নৃত্যের বিষয়টি নিয়ে আপত্তি তোলেন অনেকে। এ কারণে আইনি জটিলতায় বাংলাদেশে বন্ধ হলো গানটির প্রচার।

৩০ মে দুপুরে কথা হয় জাজ-এর সিইও আলীমুল্লাহ খোকনের। তিনি গানটি সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে স্বীকার করলেও কোনো বক্তব্য দেননি। প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার আবদুল আজিজ ব্যবসায়িক কাজে জার্মানি থাকায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে বিশ্বস্ত সূত্র বলছে, তীব্র সমালোচনাকে ইতিবাচকভাবেই নিয়েছে জাজ। তাদের ধারনা ছিলো না যে, গানটি এতোটা বিতর্ক তৈরি করবে।

অন্যদিকে অফিসিয়ালি গানটি জাজের ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হলেও এটি অবৈধ অনেক চ্যানেলে দেখা যাচ্ছে। সেগুলোর মন্তব্যের ঘরেও বিতর্ক অব্যাহত রয়েছে।

একইদিনে কলকাতার গ্রাসরুট এন্টারটেইনমেন্টের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ হওয়া ‘আল্লাহ মেহেরবান’ এখন পর্যন্ত উপভোগ করেছেন ১০ লক্ষ দর্শক-শ্রোতা। তবে আপত্তিকর মন্তব্য আর ডিসলাইকই বেশি। দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত গানটি পছন্দ (লাইক) করেছেন  ১০ হাজার ৩৩৮ জন, আর অপছন্দ (ডিসলাইক) করেছেন ১৭ হাজার ২১৪ জন।

২৮ মে আজিজুল বাশারের পক্ষে আইনজীবি মো. হুজ্জাতুল ইসলাম খান উকিল নোটিশ পাঠিয়েছিলেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার প্রযোজক আবদুল আজিজ বরাবর। উকিল নোটিশে তিনদিনের সময় বেঁধে দেওয়া হয়।

খবরঃ বাংলানিউজ