স্ত্রীর পাশে থাকতে রাতেই ঢাকা ছাড়ছেন সাকিব

খেলাধুলা

সন্তানসম্ভবা স্ত্রীকে যুক্তরাষ্ট্রে রেখে গত ৩১ অক্টোবর রাতে ঢাকায় ফেরেন সাকিব আল হাসান। স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশিরের অনুপ্রেরণাতেই ঢাকায় ফেরেন তিনি। সে সময় সাকিব নিজেই জানিয়েছিলেন, ‘শিশির আমাকে বলেছে, তুমি যাও, দেশের পক্ষে খেলো। এখানে (যুক্তরাষ্ট্রে) যদি আসার প্রয়োজন পড়ে, তাহলেই তুমি ছুটি নিয়ে এসো। শিশিরের অনুপ্রেরণাতেই আমি চলে এসেছি।’ সাকিব দেশের জার্সি গায়ে খেলতে চেয়েছিলেন সিরিজের সব ম্যাচগুলো।

কিন্তু, সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে রোববার (০৮ নভেম্বর) রাতে আরেকবার যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশ্য ঢাকা ছাড়বেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব। তাই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের বাকি ম্যাচগুলো তার খেলা হচ্ছেনা বলে জানালেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন।

রোববার (০৮ নভেম্বর) বিকেলে বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সুজন।

বিষয়টি নিয়ে সুজন আরও বলেন, সন্তান সম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে বোর্ড থেকে আগেই ছুটি নিয়েছিলেন সাকিব। তবে, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ থাকায়, তিনি আমেরিকা থেকে চলে আসেন। পাশাপাশি সাকিব বোর্ডকে এও জানিয়ে রেখেছিলেন যে, শিশিরের অবস্থা সংকটাপন্ন হলে তিনি তার পাশে থাকতে যে কোন সময় ছুটির আবেদন করবেন।

জানা যায়, সুজন তাকে সিরিজটি খেলে যেতে অনুরোধ করছিলেন। সাকিবও চাচ্ছিলেন সিরিজটি খেলে যেতে। তবে শেষ মুহূর্তে তিনি বোর্ডকে জানান, তাকে যেতেই হবে। ফলে বোর্ড তার ছুটি মঞ্জুর করে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতেই বল হাতে ক্যারিয়ারের ৫ উইকেট তুলে নেন, এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। সেটিও হয়তো খেলা হতো না সাকিবের। সিরিজের আগে তিনি যুক্তরাষ্ট্রেই ছিলেন। কিন্তু তার স্ত্রী শিশির একরকম জোর করে দেশের পক্ষে খেলতে পাঠান সাকিবকে।