স্থগিত পরীক্ষা নেওয়ার আন্দোলনে রাবি শিক্ষার্থীরা

ক্যাম্পাসের খবর রাজশাহী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) স্নাতক ও স্নাতকোত্তর বিভিন্ন বর্ষের চলমান পরীক্ষায় স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে পুনরায় পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে শতাধিক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে এ কর্মসূচি শুরু হয়।

কর্মসূচি চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে আগামী রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত করেন শিক্ষার্থীরা।

কর্মসূচিতে ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী তমালিকা হক বলেন, ২০১৯ সালের অনার্স ফাইনাল ও মাস্টার্স পরীক্ষা এখনো শেষ হয়নি। জানুয়ারিতে প্রশাসনের নির্দেশে দীর্ঘদিন বন্ধের পর পরীক্ষা শুরু হয়। কিন্তু হঠাৎ করে গত ২২ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে চলমান সব পরীক্ষা স্থগিতের নির্দেশ আসে। আবাসিক হল না খুলেই চলমান পরীক্ষাগুলো নেওয়ার দাবি জানাই। পরীক্ষা শেষ হওয়া আমাদের জন্য জরুরি।

গণিত বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মুজাহের আলী বলেন, দীর্ঘ বন্ধের পর পরীক্ষা শুরুর নির্দেশনা পেয়ে বাধ্য হয়ে মেসে উঠেছি। আমাদের পরীক্ষাও শুরু হয়েছিল কিন্তু হুট করে পরীক্ষা বন্ধের নির্দেশনায় পরীক্ষার প্রস্তুতি অনেকটা ব্যাহত হচ্ছে। আমরা চাই দ্রুতই প্রশাসন আমাদের পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করুক।

এ সময় শিক্ষার্থীদের হাতে ‘অতি দ্রুত পরীক্ষা চালু চাই’, ‘দাবি মোদের একটাই, স্থগিত পরীক্ষা চালু চাই’, ‘২০১৯ সালের সব পরীক্ষা চালু চাই’, ‘শিক্ষা নিয়ে প্রহসন, চলবে না চলবে না’- ইত্যাদি লেখা সম্বলিত প্ল্যাকার্ড দেখা যায়।

এর আগে, করোনা পরিস্থিতিতে আটকে যাওয়া বিভিন্ন বর্ষের পরীক্ষাসমূহ গত ০২ জানুয়ারি থেকে নেওয়ার নির্দেশ দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ফলে বিভিন্ন বিভাগে পরীক্ষা নেওয়া শুরু হয়। কিন্তু গত ২২ ফেব্রুয়ারি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা দেয় প্রশাসন।

এদিকে হল-ক্যাম্পাস খুলে শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিক করার দাবিতে শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) থেকে ধারাবাহিক সাংস্কৃতিক আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের বামজোট। বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির পেছনে সংবাদ সম্মেলন করে তারা এ সব তথ্য জানান।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজ