স্বাধীনতা দিবস উদযাপনে রাজশাহীতে নানা আয়োজন

রাজশাহী

rjsh

উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে রাজশাহীতে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপনে এবার দু’দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার(২৪ মার্চ‘২০১৫)দুপুরে রাজশাহী আঞ্চলিক তথ্য অধিদফতরের তথ্য কর্মকর্তা নাফেয়ালা নাসরিন এ তথ্য জানান।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বুধবার(২৫ মার্চ) সকাল ১০টায় শিশু একাডেমিতে শিশুদের চিত্রাংকন(মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক), দেশাত্মবোধক গান, কবিতা আবৃত্তি(মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক) ও রচনা প্রতিযোগিতা(মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক)। রাত ১২টা ১মিনিটে জেলা পুলিশ লাইনে ৩১বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসের সূচনা করা হবে।

সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে রাজশাহীর সব সরকারি, বেসরকারি, আধা সরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। সকাল সাড়ে ৬টায় প্রতিটি প্রতিষ্ঠান এলাকার শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে। সকাল ৭টায় হেতম খাঁ বড় মসজিদে রয়েছে কোরআন খানি ও দোয়া মাহফিল।পরে সেখানে স্বাধীনতা দিবসের ওপর বিশেষ আলোচনা সভার আয়োজন করা হবে।

এছাড়া সকাল ৯টায় রাজশাহী জেলা মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে বিভাগীয় কমিশনার আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, কুচকাওয়াজের অভিবাদন গ্রহণ এবং শারীরিক কসরৎ দেখবেন ও পুরস্কার বিতরণ করবেন। এরপর সকাল সাড়ে ১১টায় শিল্পকলা একাডেমিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেওয়া হবে।

বাদ যোহর মহানগরের সব মসজিদে জাতির অব্যাহত সুখ-শান্তি, অগ্রগতি ও কল্যাণ কামনা করে বিশেষ মোনাজাত ও অন্যান্য উপাসনালয়ে সুবিধামত সময়ে বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হবে।এদিন সব হাসপাতাল, কারাগার, শিশু কেন্দ্রসমূহে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হবে।

বিকেল ৩টায় উপহার সিনেমা হলে বিনা টিকিটে শিক্ষার্থীদের জন্য মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হবে। বিকেল ৪টায় রিভারভিউ কালেক্টরেট স্কুলে নারীদের ক্রীড়ানুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

একই সময়ে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে জেলা প্রশাসক একাদশ বনাম মুক্তিযোদ্ধা একাদশ এবং সাড়ে ৪টায় মেয়র একাদশ বনাম বিভাগীয় কমিশনার একাদশ এর মধ্যে প্রীতি ফুটবল অনুষ্ঠিত হবে।পরে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

সন্ধ্যা সাতটায় শিল্পকলা একাডেমিতে সুখী ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে ডিজিটাল প্রযুক্তির সার্বজনীন ব্যবহার শিরোনামে আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। সন্ধ্যায় লক্ষ্মীপুর মোড় ও আলুপট্টি মোড়ে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে।

এদিন প্রবেশ মূল্য ছাড়া জাদুঘর, পার্ক, চিড়িয়াখানা শিশুদের জন্য উন্মুক্ত রাখা হবে এবং জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে রক্তদান কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া ২৫ ও ২৬ মার্চ উভয় দিন সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত মহানগরীর গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ভবনসমূহে আলোকসজ্জা করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.