৫২টি ট্রেন যথাসময়ে চলছে, ৩টিতে বিপর্যয়

জাতীয়

৫৫টি ট্রেনের মধ্যে তিনটি ছাড়া বাকি ৫২টি ট্রেন একেবারে যথাসময়ে চলছে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এবং আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির সভাপতি আ ক ম মোজাম্মেল হক।

রোববার (২ জুন) সকাল সাড়ে ১০টায় কমলাপুর রেল স্টেশন পরিদর্শনে এসে একথা জানান মন্ত্রী।

আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, ২০ বছর আগের জাতীয় বাজেটের সমান বর্তমান রেলওয়ের বাজেট। সবচেয়ে অবহেলিত ছিল রেলপথ। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রেলকে অনেক গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করেন। বর্তমানে রেলের অনেক উন্নয়ন হয়েছে। ভবিষ্যতে আরও উন্নয়ন হবে।

তিনটি ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়ের কারণ ব্যাখা করে মন্ত্রী বলেন, দূরপাল্লার এই ট্রেন তিনটি গন্তব্যে পৌঁছে আবার এই তিনটি ট্রেনই ফিরে আসে। যেহেতু একবার শিডিউল বিপর্যয় হয়েছে, তাই আগামী ১/২ দিন সময় লাগবে এই তিনটির সময় ঠিক করতে।

তিনি আরও বলেন, ইতোমধ্যে আমাদের অনেক বগি এসেছে। কিছু ইঞ্জিন আসার অপেক্ষায়। এগুলো এলে আমাদের ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় আর থাকবে না। কোনো ট্রেন লেট করলে যথাসময়ে সেটার পরিবর্তে অন্য ট্রেন ছেড়ে যাবে।

আইন-শৃঙ্খলা প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, বাড়ি ফেরা মানুষদের নিরাপত্তার জন্য সর্বোচ্চ সতর্কতা নেওয়া হয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সব সময় নজর রাখছে যেন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে।

মন্ত্রী সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ের আগে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে অপেক্ষামাণ কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেসের যাত্রীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় এবং ঈদে ট্রেনযাত্রার বিষয়ে কথা বলেন।

এসময় মন্ত্রীর সঙ্গে কমলাপুর রেল স্টেশনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ উপস্থিত ছিল।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর