মুখের কথায় পাঠানো যাবে ই-মেইল

তথ্য প্রযুক্তি

wpid-email.jpg
মাইক্রোসফটের অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার প্যাকেজ অফিস আরো উন্নত করতে এতে যোগ করা হচ্ছে ভার্চুয়াল সহকারী করটানার সেবা। সম্প্রতি এক স্ক্রিনশট ফাঁসের কথা উল্লেখ করে এ তথ্য জানায় উইন্ডোজব্লগ ইতালিয়া।

করটানার সুবাদে গ্রাহক অফিস সফটওয়্যারে ওপেন, সার্চ, শেয়ার, এডিট এমনকি ইমেইলটি পাঠানোর মতো কমান্ডও কণ্ঠস্বরেই দিতে পারবেন। বিশ্লেষকদের মতে, করটানা সেবা চালু হলে বহুল জনপ্রিয় অফিসের গ্রহণযোগ্যতা অনেকাংশে বাড়বে। গুগল ও অ্যাপলে এরই মধ্যে এ ধরনের সেবা যোগ হয়েছে। মাইক্রোসফট অনেক আগেই করটানা সেবা চালু করে।

তবে সম্প্রতি এটিকে আরো কার্যকর করে জনপ্রিয়তা বাড়ানো হচ্ছে। মাইক্রোসফট ওয়ার্ক অ্যাসিস্ট্যান্ট নামে আলাদা একটি অ্যাপ নিয়ে কাজ করছে। আর অ্যাপটি এমনভাবে নকশা করা হচ্ছে, যাতে এর মাধ্যমে মাইক্রোসফটের অফিসের অনেক কাজ ভয়েজ কমান্ডের মাধ্যমে করা যায়।

অ্যাপটি মোবাইল ডিভাইসের পাশাপাশি পার্সোনাল কম্পিউটারেও ব্যবহার করা যাবে। মাইক্রোসফট এ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সেবাটি আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েডেও চালু করতে পারে বলে জানা যায়। এ পর্যন্ত মাইক্রোসফট অফিসে বেশকিছু নতুন সেবা যুক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে স্কাইপ সেবা যুক্ত করা।

অফিসে কাজ করা অবস্থায় গ্রাহক স্কাইপের মাধ্যমে ভিডিও চ্যাট করতে পারবেন। পাশাপাশি একাধিক ব্যক্তি একই সঙ্গে তথ্য সম্পাদনা করতে পারবেন। মাইক্রোসফট অফিসের গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতেই এসব সেবা যুক্ত করা হচ্ছে। আর এতে করে ব্যবহারকারীরাও পাচ্ছেন নতুন অভিজ্ঞতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.