আদিবাসীদের মান উন্নয়নে প্রয়োজন উচ্চ বাজেট

রাজশাহী

সমতলের আদিবাসীদের উন্নয়নে বাজেট বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছেন রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ও আদিবাসী সংসদীয় কমিটি ককাসের আহবায়ক ফজলে হোসেন বাদশা।

শনিবার (২৭ জুন) দুপুরে অনগ্রসর সমাজ উন্নয়ন সংস্থার (আসুস) আয়োজনে এবং মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় মহানগরের সাফাওয়াং হল রুমে অ্যাডভোকেসি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানান।

বাদশা বলেন, প্রকৃতভাবে সমতলের আদিবাসীদের উন্নয়ন করতে হলে ৫০০ কোটি টাকার বাজেট প্রয়োজন। গতবারের বাজেটে আদিবাসীদের জন্য ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ চাওয়া হলেও দেওয়া হয় ১৬ কোটি টাকা। কিন্তু এ বাজেটে তাদের কোনো কিছুই করা সম্ভব হয়নি।

চলতি ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে জাতীয় বাজেটে তাদের জন্য ২০ কোটি টাকা বাজেট দেওয়া হয়। কিন্তু এ টাকায় আদিবাসীদের আর্থসামাজিক নিরাপত্তা ও উন্নয়ন কোনভাবেই সম্ভব নয় বলে উল্লেখ করে তিনি।

ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, অধিকার আদায় করতে জাতীয় আদিবাসী পরিষদকে আরও শক্তিশালী হতে হবে। আদিবাসীদের অধিকার তাদের নিজেদেরই আদায় করতে হবে।

আদিবাসীদের উদ্দেশ্য করে এ সংসদ সদস্য বলেন, যৌক্তিক দাবি নিয়ে রাজপথে থাকুন আমরা সমর্থন দেবো। রাজনৈতিক সচেতনতা না থাকলে কোনো জাতিই উন্নয়ন করতে পারে না। আদিবাসীদের উন্নয়ন ও ভূমি রক্ষা করতে হলে আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই।

সভায় সভাপতিত্ব করেন আসুস এর নির্বাহী পরিচালক রাজকুমার শাও। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় ক্ষুদ্র নৃ-তাত্বিক জাতিগোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমীর উপ-পরিচালক এস.এম শামীম আকতার ও গোদাগাড়ী উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার আহসান আরা রুবি।

এছাড়া সভায় অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন- জাতীয় আদিবাসী পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য অনিল মারান্ডি, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ রাজশাহী জেলা শাখার সভাপতি বিমল চন্দ্র রাজোয়ার, সাধারণ সম্পাদক সুশেন কুমার শ্যামদুয়ার প্রমুখ।