রাজশাহীতে পুলিশের সঙ্গে ট্রাক শ্রমিকদের হাতাহাতি

রাজশাহী রাজশাহী বিভাগ

রাজশাহী মহানগরীর নওদাপাড়া আমচত্বর এলাকায় গাড়ি তল্লাশিকে কেন্দ্র করে ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে ট্রাক শ্রমিকদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার জের ধরে দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে ওই এলাকায় রাজশাহী-নওগাঁ ও রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন ট্রাক শ্রমিকরা। এ সময় এক ট্রাফিক পুলিশ সদস্যকে আটকে রাখলেও পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া দেন শ্রমিকরা। বর্তমানে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মহানগরীর খড়খড়ি বাইপাশের দিক থেকে একটি ট্রাকে করে শ্রমিকরা আসছিলেন। এ সময় সার্জেন্ট তোহা এবং একজন ট্রাফিক কনস্টেবল মিলে ওই ট্রাকটি দাঁড় করান।

ট্রাক চালক ট্রাকটি দাঁড় করানোর পর তার বিভিন্ন কাগজপত্র বৈধ থাকা সত্ত্বেও সার্জেন্ট তোহা ২০০ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ট্রাফিক সার্জেন্ট তোহা ও এক পুলিশ কনস্টেবল ট্রাক চালককে ট্রাক থেকে শার্টের কলার ধরে নিচে নামিয়ে চড় থাপ্পড় মারতে থাকেন।

ঘটনা শুনে আমচত্বরে অবস্থিত ট্রাক সমিতির কয়েকজন নেতাকর্মী সেখানে উপস্থিত হন। এ সময় তাদের সঙ্গে পুলিশের হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে ট্রাক শ্রমিকরা ট্রাকের চালান নিয়ন্ত্রণ কক্ষে ট্রাফিক পুলিশের এক সদস্যকে আটকে রাখেন। এছাড়াও রাজশাহী-নওগাঁ ও রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকেন। এ নিয়ে ওই এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হলে যে কোনো সময় রাজশাহী বিভাগে ট্রাক ধর্মঘট ডাকা হবে বলে জানান ট্রাক শ্রমিকরা।

বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে মহানগরীর শাহ মখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রউফ জানান, পুরো ঘটনা এখনও স্পষ্ট নয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অবরোধ তুলে দেওয়ার চেষ্টা করছে।

এ ব্যাপারে ট্রাক শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে আলোচনাও চলছে বলে জানান ওসি।

বাংলানিউজ