রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে জনসভার প্রস্তুতি

রাজশাহী

আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর রাজশাহীর পবা উপজেলায় যাচ্ছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে উপজেলার খড়খড়ি এলাকায় বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠে আয়োজিত এক জনসভায় ভাষণ দেবেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে বুধবার (০৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ওই মাঠটি পরিদর্শন করেছেন রাজশাহী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার। পরিদর্শনকালে তিনি মাঠের সংস্কার কাজ এবং অন্যান্য প্রস্তুতির ব্যাপারে খোঁজ-খবর নেন।

এ সময় রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-৩ নার্গিস আক্তার, সদস্য শফিকুল ইসলাম, সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের সদস্য কৃষ্ণা দেবী ও জয়জয়ন্তী সরকার মালতি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকালে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের দফতরে একটি প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার সভায় সভাপতিত্ব করেন। এতে পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. দেওয়ান মো. শাহরিয়ার ফিরোজ, প্যানেল চেয়ারম্যান-১ নাইমুল হুদা রানা, প্যানেল চেয়ারম্যান-২ রবিউল আলমসহ অন্যান্য সদস্য এবং নারী সদস্যরা অংশ নেন।

সভায় সিদ্ধান্ত হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষ্যে রাজশাহী মহানগরীসহ জেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পর্যাপ্ত সংখ্যক তোরণ নির্মাণ করবে জেলা পরিষদ। এছাড়া জনসভার আগ থেকে পর্যাপ্ত ব্যানার ও ফেস্টুন টাঙিয়ে এ বিষয়ে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রচারণা চালানো হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর এক দিনের সরকারি সফরে রাজশাহী আসবেন। গত ২৭ আগস্ট বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব-১ কাজী নিশাত রসুল সাক্ষরিত এক চিঠি সূত্রে এ সফরের এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সফরসূচি অনুযায়ী ওইদিন প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীর সারদায় থাকা বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে শিক্ষানবিস সহকারী পুলিশ সুপারদের শিক্ষা সমপানী কুচকাওয়াজে অংশ নিবেন এবং অভিবাদন গ্রহণ করবেন। একইদিন তিনি রাজশাহীর পবা উপজেলার বরেন্দ্র বিশ্বিবিদ্যালয় মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ভাষণ দেবেন। রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে কেন্দ্র করে ব্যাপক প্রস্ততি নেওয়া হচ্ছে।

খবরঃ বাংলানিউজ

3 thoughts on “রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে জনসভার প্রস্তুতি

Comments are closed.