রাজশাহীতে র‌্যাব হেফাজতে যুবকের মৃত্যু

নওগাঁ রাজশাহী

র‌্যাবের হেফাজতে থাকা মাজহারুল ইসলাম জিয়াস (৩০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার ভোররাতে ওই যুবককে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

র‌্যাবের দাবি, জিয়াস অস্ত্র ব্যবসায়ী ছিলেন। গ্রেফতারের পর জিয়াসের তথ্যানুযায়ী তাকে সঙ্গে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে বের হয় র‌্যাব। এ সময় অসুস্থ হয়ে তিনি মারা যান।

মৃত জিয়াস নওগাঁর মান্দা উপজেলার কৈবর্তপাড়া এলাকার আনিসুর রহমানের ছেলে।

র‌্যাব-৫ এর জয়পুরহাট ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার মুরাদুল ইসলাম জানিয়েছেন, জিয়াসকে শুক্রবার দিবাগত রাতে ৬ রাউন্ড গুলিসহ আটক করা হয়। এর মধ্যে তিন রাউন্ড বন্দুকের ও তিন রাউন্ড পিস্তলের গুলি ছিল।
এরপর জিজ্ঞাসাবাদে জিয়াস জানান, তার হেফাজতে আরও তিনটি অস্ত্র আছে। সেই অস্ত্র উদ্ধারে র‌্যাব জিয়াসকে নিয়ে অভিযানে বের হয়। তিনি র‌্যাবকে নিয়ে বিভিন্ন স্থানে ঘুরেন।

একপর্যায়ে জিয়াস গাড়িতেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তবে র‌্যাব জয়পুরহাট ক্যাম্পের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিস্তারিত জানানো হবে বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ার্ডমাস্টার মোশররফ হোসেন যুগান্তরকে জানান, শনিবার ভোর ৪টা ৩৭ মিনিটে জিয়াসকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তার শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি বলে জানিয়েছেন জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আসাদুজ্জামান।

এদিকে নগরীর রাজপাড়া থানার ওসি হাফিজুর রহমান যুগান্তরকে জানান, জিয়াসের মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির জন্য ম্যাজিস্ট্রেট হাসপাতালে গেছেন। এরপরই ময়নাতদন্ত করা হবে বলে জানান ওসি।

খবর: যুগান্তর

1 thought on “রাজশাহীতে র‌্যাব হেফাজতে যুবকের মৃত্যু

Comments are closed.