রাবিতে খসে পড়ছে আবাসিক ভবনের পলেস্তারা

রাজশাহী রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) খসে পড়ছে শিক্ষকদের আবাসিক ভবনের পলেস্তারা সিলিং, প্রায় ঘটছে অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা। পরিবার নিয়ে আতঙ্কে সময় কাটছে শিক্ষকদের। সম্প্রতি ছাদের টুকরোর আঘাতে শিক্ষক পুত্রের আহত হওয়ার ঘটনাও ঘটেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। যা নিয়ে রীতিমতো আতঙ্কে রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষকরা।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. ইশতিয়াক হোসেন জানান, মাঝে মাঝেই ছাদের নিচের অংশ খসে পড়ে। কিছুদিন আগে আমার ছেলে শুয়ে থাকা অবস্থায় পেটের উপর পড়ে আহত হয়। গতকাল সোমবার দুপুরেও এমন ঘটনা ঘটে। গোসলের জন্য ওয়াশরুমে গেলেই খসে পড়ে ছাদের নিচের অংশ। অল্পের জন্য মাথার উপর পড়েনি ছাদের টুকরোগুলো বলে জানান তিনি।

হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থা বিভাগের শিক্ষক সোহেল মেহেদী বলেন, পুরাতন ভবনগুলো দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় এমন সমস্যা। যাদের ভবনে এমন সমস্যা হচ্ছে তাদের পরিবারের মধ্যে প্রতিনিয়ত আতঙ্ক কাজ করছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এখানে সবমিলিয়ে প্রায় ৮৮টি ভবন আছে। উপাচার্য, উপ-উপাচার্যে ভবনসহ এ, বি, সি, এ তিন ক্যাটাগরির আবাসিক ভবনগুলোর ৩১৯টি বাসায় শিক্ষক-কর্মকর্তার পরিবার থাকার ব্যবস্থা আছে। প্রায় প্রতিটি ভবনেই একই সমস্যা বলে জানান শিক্ষকরা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী সিরাজুম মুনীর বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের আবাসিক ভবনগগুলো পুরাতন হওয়ার ফলে এমন ঘটনা ঘটছে। এখন প্রয়োজন ভবনের ছাদ পরিবর্তন করার। চেষ্টা করছি যাতে ওই ভবনের ছাদগুলো পরিবর্তনের মাধ্যমে স্থায়ী সমাধানে যাওয়া যায় কিন্তু এতে বড় আকারের বাজেটের প্রয়োজন।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ ডেইলি সানশাইন