এক বছরে রাজশাহীতে ২৪ নারী-শিশুকে হত্যা, ধর্ষণ ৩৩

রাজশাহী

গত এক বছরে রাজশাহী জেলায় ২৪ নারী ও শিশু হত্যাকণ্ডের শিকার হয়েছে। আর ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৩৩ জন। এছাড়া জেলায় নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে ৩৯৯টি।

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন কমিউনিটি ডেলেলপমেন্ট-এসিডি ও লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোস্যাল ওয়েলফেয়ার-লফস এই তথ্য জানিয়েছে। স্থানীয় ও জাতীয় সংবাদপত্রসমূহ এবং নিজস্ব জরিপের ভিত্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে সংস্থা দুটি।

জানা গেছে, গত বছর রাজশাহীতে হত্যাকাণ্ডের শিকার ১৭ নারী এবং ৭ শিশু হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে। আরও দুই নারী ও এক শিশু হত্যার চেষ্টার শিকার হয়েছে। আত্মহত্যা করেছেন ২৫ নারী ও ২০ শিশু। এছাড়া ২৩ নারী ও ২৩ শিশু আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন এ বছর।

২৫ শিশু ও ৮ নারী ধর্ষণ, ২ শিশু ও তিন নারী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এক বছরে। আর ধর্ষণ চেষ্টার শিকার ১০ শিশু ও তিন নারী। ধর্ষণের পর হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে আরেক শিশু।

গত বছর ৫৮ নারী ও ২৮ শিশু নির্যাতন এবং তিন নারী ও এক শিশু পর্নোগ্রাফির শিকার। এছাড়া ২ নারী এবং এক শিশু অপহরণ হয়েছে। এক বছরে ৪০ শিশু ও ২৮ নারীর অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে ১৩ শিশু ও ২ নারী। সহিংসতায় আহত হয়েছেন ২৫ শিশু ও ১৪ নারী।

এর আগে ২০১৭ সালে রাজশাহীতে ৪৫৬টি নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে হত্যাকাণ্ড ১৪টি, হত্যা চেষ্টা ১০টি, রহস্যজনক মৃত্যু ৪টি, ধর্ষণ ২৪টি, ধর্ষণ চেষ্টা ১০টি, অপহরণ ৩টি, অ্যাসিড নিক্ষেপ ১টি, যৌন হয়রানি ১৯টি, আত্মহত্যা ৩৯টি এবং আত্মহত্যার চেষ্টা ৭টি। পারিবারিক বিরোধ, জমি নিয়ে সংঘর্ষেসহ অন্যান্য ঘটনা ঘটে আরও ১৩০টি।

খবর কৃতজ্ঞতাঃ জাগোনিউজ২৪